1. letusikder@gmail.com : agameerprotyasha :
  2. sabbir.bdwebs@gmail.com : sabbir : S.M. Rubel
দানবের পালন মানবের নিধন - আগামীর প্রত্যাশা ডটকম
শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নতুন মোটরসাইকেল কিনে বাড়ি ফেরা হলোনা যুবকের ফরিদপুরে আহলে হাদিস মসজিদ ও মাদরাসা ভাঙ্গার প্রতিবাদে খুলনায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত E-Paper-06.12.2020 স্বাধীন দেশে মৌলবাদের কোন জায়গা হবে না’ -মুশা মিয়া বোয়ালমারীতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৫ রেলওয়ের ৮৪ শতাংশ লেভেল ক্রসিং অরক্ষিতঃ কাঙ্ক্ষিত গতিতে চলতে পারছে না ট্রেন *বাড়ছে দূর্ঘটনা, প্রতিকারে সংশ্লিষ্টদের কার্যকর উদ্যোগ নেই পাংশা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ও শিক্ষকরা পরস্পর বিরোধী অবস্থানেঃ প্রশাসনিক ও একাডেমিক কার্যক্রম ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা পাংশায় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে কৃষকের মাঝে বিনা মূল্যে পেঁয়াজ বীজসহ বিভিন্ন ধরনের বীজ ও সার বিতরণ মন্দির থেকে মূর্তি চুরি E-Paper-22.11.2020

দানবের পালন মানবের নিধন

  • প্রকাশের সময় :বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০
  • ১৯৩বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

-মুক্তিযোদ্ধা মো.বদিউজ্জামানঃ
দানবের পালন মানবের নিধনইতমধ্যে জাতিসংঘের পরিষদে রোহিঙ্গা মুসলিমদের উপর মিয়ানমারের দানবীয় নিপীড়ন ও নিধনযজ্ঞ গণহত্যা বলে স্বীকৃতি প্রদানের বিল পাশ করেছে। অতঃপর মিয়ানমার বিশ্ব মানবিকতায় বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শণ করে নতুন করে রোহিঙ্গা নিধনের নিপীড়ন শুরু করেছে।

স্বভাবতঃ প্রশ্ন তাহলো কিসের দুর্বলতায় বিশ্ব মানবিক বিবেক মিয়ানমারের উপর সামরিক অর্থনৈতিক ও সামাজিক সকল প্রকার দৃঢ় অবরোধ প্রতিরোধ দ্রুত পদক্ষেপ নিতে অপরাগ নাকি উদসীন! গত ১৩ মার্চ ২০১৮ ইং প্রথম আলোয় প্রকাশিত ষ্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্স ইনষ্টিটিউট এর এক গবেষণা প্রতিবেদনে দেখা যায় অস্ত্র রফতানী কারক শীর্ষ দেশ যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বে ৯৮টির বেশি দেশে তারা অস্ত্র সরবরাহ করে থাকে। অপরদিকে রাশিয়ায় অস্ত্র রফতানি ৭ দশমিক ০১ শতাংশ কমলেও দ্বিতীয় স্থান দখলে রেখেছে। অস্ত্র আমদানীকারক শীর্ষ পাঁচ দেশের মধ্যে যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ফ্রান্স, জার্মানি ও চীন।

এসআইপিআরআই বলেছে এশিয়া মহাদেশের ভারত শীর্ষ অস্ত্র আমদানী কারক দেশ। রাশিয়া ভারতের ৬২ শতাংশ অস্ত্র যোগান দেয়। উল্লেখযোগ্য অস্ত্র যুক্তরাষ্ট্র থেকেও আমদানী করে থাকে। প্রয়োজনীয় অস্ত্র উৎপাদনের সক্ষমতা বেড়েছে চীনের। গবেষণায় প্রকাশিত হয়েছে বিগত পাঁচ বছরে বেইজিংয়ে অস্ত্র আমদানী ৩৮ শতাংশ বেড়েছে। যার প্রধান ক্রেতা মিয়ানমার। মিয়ানমার ৬৮ শতাংশ অস্ত্রই চীন থেকে আমদানী করে থাকে। গবেষক পিটার ইয়েজমেনের গবেষণায় এমন প্রমাণ উঠে এসেছে। পরমানু শক্তিধর পাকিস্থানে ৭০ শতাংশ অস্ত্রের যোগানদাতা এশিয়া মহাদেশের এই প্রভাবশালী দেশ একমাত্র বেইজিং।
পিটার উয়েজমেনের গবেষণার আলোকে বলা যায় মিয়ানমারের নাগরিক রোহিঙ্গা জাতিগত মুসলিম সম্প্রদায়ের পরিবারভুক্ত। অপরদিকে মিয়ানমার এবং চীন একই বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের পরিবারভুক্ত। এমন বৈষম্যতার তারতম্যে মিয়ানমারের দানবের রোহিঙ্গা মানবের নিধনযজ্ঞ নৃশংসতায় আট লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা মাতৃভূমি ত্যাগ করে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে।

বাংলাদেশ মানবতার সহমর্মিতার বাহু প্রসারিত করেছে মাত্র। শান্তিপূর্ণ সমাধানের মাধ্যমে রোহিঙ্গা শরণার্থীরা স্বদেশে প্রত্যাবর্তণ করতে পারে সেই মহৎ উদ্দ্যোগে বাংলাদেশ বিশ্বের মানবিক সহমর্মিতার দ্বারে দ্বারে সার্বিক সহযোগীতার অনুরোধ জানিয়ে আসিতেছে। কিন্তু মহাদেশীয় দানবের অমানবিক সহযোগীতায় বিশ্ব মানবতার সকল তৎপরতা চরম ব্যাঘাত সৃষ্টি করছে। পাকিস্থান, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারে অস্ত্র যোগানের মাধ্যমে দেশগুলোর সাথে দৃঢ় বন্ধুত্বের সম্পর্ক বজায় রাখার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। ফলে দক্ষিণ এশিয়ায় উত্তাপ্তের বিষ বাষ্প ছড়িয়ে দানবের পালন মানবের নিধন প্রচেষ্টা ও অব্যাহত।

লেখকঃ
স্বশস্ত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা।

Comments are closed.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
Copyright November, 2014-2020 @ agameerprotyasha.com
Website Hosted by: Bdwebs.com
error: Content is protected !!