বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:১৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
E-Paper-12.10.2021 E-Paper-15.08.2021 নড়াইলে কঠোর লকডাউন চলছে, আক্রান্তের হারও হু হু করে বাড়ছে থেমে নেই মৃত্যু কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্টের হেলিকপ্টারে গুলি: ‘জাকারবার্গ’কে খুঁজে দিতে পুরস্কার ঘোষণা! মাগুরার মহম্মদপুরে যুবকের বস্তাবন্ধি লাশ উদ্ধার। ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত শিশু কন্যার জীবন বাঁচাতে সাহায্য কামনা অনুষ্ঠিত হলো তথ্য কর্মকর্তাদের ভার্চুয়াল কর্মশালাঃ তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের কর্মীদেরকে সরকার ও জনগণের মধ্যে “সেতুবন্ধ” বললেন সচিব নগরকান্দায় বাস-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষ আহত -১৫ কুষ্টিয়ায় আলোচিত ইসলামী বক্তা মুফতি আমির হামজা আটক আলফাডাঙ্গায় আ’লীগ নেতার বাড়িতে হামলা গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

কোটচাঁদপুর সরকারী কলেজে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু’র দায় নিতে চান না কেউ!

তারেক জাহিদ, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর সরকারী কে,এম,এইচ কলেজে বুধবার নির্মান কাজের সময় লিণ্টেন ভেঙ্গে মাথায় পড়ে নির্মাণ শ্রমিক মালেক শাহ (৫০)-এর মৃত্যু’র ঘটনায় অবশেষে ওই রাতেই স্থানীয় থানায় মামলা হয়েছে।

কোটচাঁদপুর থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুল আলম জানান, ৩০৪-এর(ক) ধারায় ত্রুটি পূর্ণ নির্মাণ কাজ ও অবহেলা জনিত কারণে মৃত্যু’র অভিযোগে প্রধান নির্মাণ মিস্ত্রী রাজিবের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আসামি দেখিয়ে মামলা করেছে মৃতের ছেলে শাকিল শাহ। মামলা নং-১৪।

জানা গেছে, কলেজে’র ১৫ লাখ টাকার রিপিয়ারিং কাজটি পান ঝিনাইদহের মেসার্স পিণ্টু টেডার্স। এক কাজটি কিনে নেনে কালিগজ্ঞের বাবু ও মিলন। তারা আবার চুক্তিতে দেন নির্মাণ মিস্ত্রী রাজিবের নিকট। বিষয়টি দেখভাল করেন উপ-সহকারী প্রকৌশলী (শিক্ষা) তুহিন হোসেন। অভিযোগ উঠেছে, কাজটি কয়েকটি হাত বদলানোর কারণে কাজে ব্যাপক ত্রুটি রয়েছে। যে কারণে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু’র ঘটনা ঘটেছে।

বিষয়টি নিয়ে কলেজের অধ্যক্ষ অনুতোষ কুমার এ প্রতিবেদকে বলেন, এ কাজের দায়ভার সামন্য পরিমানে আমার নয়। কাজ বুঝ করে নেয়ার দায়িত্ব সরকার আমাকে দেন নাই। কাজ বুঝে নেয়ার দায়িত্ব কার প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, বিল্ডিং তৈরী হওয়ার পর শুধু চাবি বুঝ করে নেয়ার দায়িত্ব আমার। আর কিছু নয়। বাকী দায়িত্ব প্রকৌশলী ও ঠিকাদারের।

তারপরও তিনি স্ব-ইচ্ছায় কাজ দেখা শুনার জন্য তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি করে দিয়েছেন বলে জানান তিনি। কমিটির সদস্যরা হচ্ছেন কলেজের সহকারী অধ্যাপক (ইতিহাস) আতিকুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক (বাংলা) রবিউল ইসলাম, প্রভাষক (জীব বিজ্ঞান) আলমগীর হুসাইন।

এ বিষয়টি নিয়ে কলেজের সহকারী অধ্যাপক (ইতিহাস) আতিকুর রহমানের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এ কাজের তদারকি মানে বালি, ইট রড কোথায় নামবে এ জায়গা বের করে দেয়া। তা ছাড়া আমরা তো এ কাজ খুব একটা বুঝিনা ইঞ্জিনিয়ার সাহেব কখন লেবার নিয়ে ঢালাই দিচ্ছেন আমাদের সাথে বলেনও না।

বিষয়টি নিয়ে উপ-সহকারী প্রকৌশলী তুহিন হোসেন ও সাব কণ্টাক নেয়া ঠিকাদার মিলন ও প্রধান নির্মাণ মিস্ত্রী রাজিবের সাথে কথা বললে তিনজন কেউ এ দূর্ঘটনার বিষয়ে দায়িত্ব নিতে চান না। একে অপরের উপর দোষ চাপান।

এখন প্রশ্ন উঠেছে এঘটনার দায়ভার কার! যে কারণে কোটচাঁদপুরের স্বচেতন মহলসহ ভুক্তভোগী পরিবার বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ শিক্ষা মন্ত্রীর দ্রæত হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

Print Friendly, PDF & Email


     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ